February 24, 2024

সকল দেবতার বীজমন্ত্র

আমরা হিন্দু ধর্মে দেব দেবীদের আরাধনা করবার জন্য সেই দেব দেবীর বিশেষ মন্ত্র পাঠ করে থাকি। এই মন্ত্র সমূহ সাধককে তার কাঙ্ক্ষিত ফল প্রদান করে থাকে। এই মন্ত্র গুলোর মধ্যে সবচেয়ে শক্তিশালী হল সেই দেবতার বীজ মন্ত্র। এই বীজ মন্ত্র থেকেই ঐ দেবতার সকল মন্ত্রের উৎপত্তি। এই মন্ত্র গুলোই ঐ দেবতার প্রধান মন্ত্র বলে মনে করে আমাদের শাস্ত্র। এই বীজ মন্ত্রের মধ্যেই ঐ দেবতার সকল গুণ এবং এই মন্ত্র গুলোর মধ্যে আধ‍্যাত্মিক শক্তি লুকায়িত থাকে।  আজ আপনারা সকল দেবতার বীজ মন্ত্র সম্পর্কে জানবেন।

কিভাবে বীজ মন্ত্র জপ করতে হয় :

অন‍্যান‍্য মন্ত্রের থেকে যেকোন দেবতার বীজ মন্ত্র অধিক শক্তিশালী মন্ত্র বলে বিবেচনা করে আমাদের শাস্ত্র। এই মন্ত্র পাঠের কিছু নিয়ম রয়েছে। যেগুলো হল :

১. অবশ্যই গুরুর অনুমতি নিয়েই বীজ মন্ত্র পাঠ করতে হয়।
২. অবশ্যই স্নান সেরে শুদ্ধ বস্ত্র পরিধান করে এই মন্ত্র পাঠ করতে হয়।
৩. এই মন্ত্র জপ সর্বদা কোন নির্জন স্থানে বসে মন শান্ত করে করবেন। মনকে শান্ত করবার জন‍্য কিছুক্ষণ ধ‍্যান করে নেবেন প্রয়োজন হলে।
৪. এই মন্ত্রের শব্দগুলো সর্বদা স্পষ্ট উচ্চারণে জপ করবেন। যেকোন বীজ মন্ত্রের শব্দ ও উচ্চারণই হল প্রকৃত বিষয়। এই উচ্চারণ ঠিক না হলে ফল বিপরীত হতে পারে।
৫. প্রত‍্যহ কমপক্ষে ১০৮ বার জপ করবেন এই মন্ত্র। তবে মন্ত্র জপের সংখ্যা আপনি আপনার মত বাড়াতে পারেন।
৬. পূর্ণ ভক্তি ও বিশ্বাস রেখে তবেই এই মন্ত্র জপ করবেন।
৭. আপনি যে দেবতার বীজ মন্ত্র জপ করবেন সেই দেবতাকে মনে মনে আগে স্মরণ করে নেবেন।

বীজ মন্ত্র পাঠের উপকারিতা :

বীজ মন্ত্রের নির্ভুল উচ্চারণে আপনার চারপাশে একটি ইতিবাচক শক্তি সঞ্চারিত হয়। ফলে সকল নেতিবাচক শক্তি আপনার থেকে দূরে চলে যায়। যেকোন ধরনের দুরারোগ্য ব্যাধির দূর হয়, আর্থিক সংকট দূর হয়, সংসারে সুখ ও শান্তি আসে, চাকরি ও ব‍্যবসা ক্ষেত্রে উন্নতি হয় এবং এগুলি ছাড়াও যে সমস্যাই হোক না কেন, বীজ মন্ত্র জপ করলে অবশ্যই উপকার পাওয়া যায়। বীজ মন্ত্রের নিয়মিত শুদ্ধ উচ্চারণে জপ সমস্ত পাপ থেকে মুক্তি দেয় এবং জীবন শেষে মোক্ষ লাভ করে।

সকল দেব – দেবীর বীজ মন্ত্র

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *