March 1, 2024

মা তাঁরা গায়ত্রী মন্ত্র

তারা গায়ত্রী মন্ত্র হল তারা মায়ের এক চমৎকারী মন্ত্র গুলোর মধ্যে বিশেষ উল্লেখযোগ্য এক মন্ত্র। হিন্দু ধর্ম শাস্ত্র দশমহাবিদ্যার দ্বিতীয় রূপবিদ্যা হলে মা তারা এবং সেই তারা গায়ত্রী মন্ত্র হল এক অন‍্যতম কার্যকর মন্ত্র। হিন্দু ধর্মে সকল দেবদেবীর প্রতি উৎসর্গকৃত বিশেষ কিছু মন্ত্র রয়েছে। তার মধ্যে অন্যতম শক্তিশালী হলো এই গায়ত্রী মন্ত্র। ঠিক সেই রকমই তারা মায়ের সকল মন্ত্রের মধ্যে তারা গায়েত্রী মন্ত্র অন‍্যতম শক্তিশালী মন্ত্র।

তারা মায়ের গায়েত্রী মন্ত্র পাঠের উপকারিতা :

মা তারা হলেন দেবীর এক উগ্ররূপ। এই তারা মায়ের আরাধনায় তারা মা তার ভক্তদের সকল দুর্গতি নাশ করেন,বিপদ দূর করেন আবার মা কখনো আবির্ভূতা হন অন্নপূর্ণা রুপে। এই দুনিয়ায় যখন সবাই সঙ্গ ছেড়ে দেয় তখন তারা মা তাকে কাছে টেনে নেন। তারা মায়ের কাছে তার ভক্তরা সন্তানসম। মা যেমন তার সন্তানদের দুঃখ-কষ্ট দেখতে পারেন না তিনিও তার সন্তানের দুঃখে তাকে বুকে টেনে নেন। এই জগতের সমস্ত শক্তির উৎস হল মা তারা। তারা গায়েত্রী মন্ত্র পাঠে মা তার সন্তানের সকল বিপদ থেকে উদ্ধার করেন,ভক্তের সকল রোগ নিরাময় হয়ে যায়। জীবনের উন্নতির পথে সকল বাধা দূর হয় তার আশীর্বাদে। মা একদিকে যেমন বিপত্তারিণী আবার তিনি অন্নপূর্ণাও বটে। তারা গায়েত্রী মন্ত্র পাঠে ভক্তদের সকল আর্থিক কষ্ট দূর হয় এবং তারা মায়ের আরাধনা সকল মনস্কামনা পূরণ হয়। মা তারা জীবনের সকল দুঃখ,দুর্দশা,হতাশা না পাওয়া দূর করেন। তিনি জীবনে হেরে যাওয়া সমস্ত রকম পরিস্থিতিতে থেকে বের করে নিয়ে আসেন তার ভক্তদের। এই তারা মা নতুন জীবন শুরু করার শক্তি প্রদান করেন ।

তারা গায়ত্রী মন্ত্র পাঠের বিধি :

আপনারা সকাল অথবা সন্ধ্যা বেলা স্নান সেরে শুদ্ধ বস্ত্র পরিধান করে কোন আসনের উপর বসে ধুপ প্রদীপ জ্বালিয়ে উত্তর- পূর্ব দিকে মুখ করে বসে এই তারা গায়ত্রী মন্ত্র পাঠ করবেন। আপনি এই মুন্ত্র পাঠ শনিবার বা অভাবস‍্যা থেকে শুরু করবেন এবং টানা 30 দিন পাঠ করবেন। লাল বস্ত্র ও লাল আসনে বসে পাঠ করলে উত্তম ফল পাওয়া যায়। পাঠের আগে কিছুক্ষণ তারা মায়ের ধ‍্যান করবেন এবং মনে মনে মা কে স্মরণ করবেন।

তারা গায়ত্রী মন্ত্র :

ওঁ তারায়ৈ বিদ্মহে
মহাগ্রাহ‍্যৈ ধীভহি,
তন্নো দেবী প্রচোদয়াৎ।

তারা মায়ের গায়ত্রী মন্ত্র পাঠে সকল মনের ইচ্ছে পূরন হয় তবে এই মন্ত্র পাঠ অবশ্যই পূর্ণ ভক্তি ও বিশ্বাস রেখে পাঠ করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *