February 24, 2024

বাস্তুদোষ নিবারণ মন্ত্র

আজ আপনারা আমাদের এই লেখাতে বাস্তুদোষ দূর করবার এক অমোঘ মন্ত্র জানবেন। অনেকে বাস্তুদোষ নিবারণের জন‍্য বাড়ির পেছনে অনেক টাকা খরচ করে বাড়ির বিভিন্ন অংশ ভেঙ্গে চূড়ে বাস্তুদোষ ঠিক করে। এতে সময় যেমন লাগে তার থেকেও লাগে অর্থ। কিন্তু সবার পক্ষে এই অর্থ ব‍্যয় করা সম্ভব হয় না। আবার অনেকে বিভিন্ন কারনে বাড়ি ভাঙতেও পারে না। কিন্তু আপনি যদি এই মন্ত্র জপ করেন তাহলে আপনার গৃহের যেকোন প্রকার বাস্তুদোষ নিমিষেই দূর হয়ে যাবে। এই মন্ত্রর প্রয়োগও যেমন মন্ত্রটিও খুবই সোজা। এই উপায় আপনাকে করতে এক টাকাও খরচ করতে হবে না। শুধু এই মন্ত্রের প্রয়োগেই আপনার গৃহের বাস্তুদোষ একশো শতাংশ ঠিক হয়ে যাবে। আপনার ঘর এবং সংসার হয়ে উঠবে সুখ ও সমৃদ্ধিতে ভরপুর। গৃহের সকল ক্লেশ বিবাদ দূর হবে,সংসারে আগমন হবে মা লক্ষ্মীর। কি সেই বাস্তুদোষ নিবারণ মন্ত্র, কিভাবে এই মন্ত্র জপ করতে হয় ইত্যাদি সকল বিষয় আজকের এই লেখাতে জানতে পারবেন। তাই আপনার গৃহের বাস্তুদোষ দূর করে ঘর ও সংসারকে সমৃদ্ধশালী করতে অনুগ্রহ করে লেখাটি প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত খুব মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

এখন প্রশ্ন হল বাস্তুদোষ কি এবং আপনি কিভাবে বুঝবেন যে আপনার গৃহে বাস্তুদোষ রয়েছে।

আপনি যে গৃহে বসবাস করছেন সেই গৃহের কোন অংশের কোন প্রকার দোষ বা ত্রুটি থাকলে তাকে বাস্তু দোষ বলা হয়। এই বাস্তুদোষ যদি কারও গৃহে থাকে তাহলে সেই গৃহে Negative শক্তি এতটাই বৃদ্ধি পায় যে বাড়ির সকল সদস্যদের ব‍্যক্তিগত জীবন পুরোপুরি দুর্বিসহ হয়ে ওঠে।

বাস্তু দোষ মূলত দু রকমের হয়-
একটি হল জায়গাটির দোষ অর্থাৎ যে জায়গার ওপর আপনি আপনার বাড়ি বা ফ্ল‍্যাটটি করেছেন বা কিনেছেন এবং আরকটি হল বাড়ির নির্মান গত দোষ অর্থাৎ যেদিকে যেটি হবার কথা সেটি উপযুক্ত ভাবে তৈরি না হওয়া। এই দুটি দোষের যেকোন একটি দোষ থাকলেই তাকে বাস্তুদোষ বলা হয়। যদিও বাস্তুদোষ হবার আরও কিছু কারণ রয়েছে তবে মূলত এই দুটি কারনের জন‍্যই বাস্তুদোষ হয়ে থাকে।

বাস্তুদোষ যে গৃহে থাকে সেই গৃহের কি কি সমস্যা হতে পারে তা একটু অল্প কথায় জেনে নিন :

আগেই বললাম যে বাড়িতে বাস্তুদোষ থাকে সেই বাড়িতে নেগেটিভ শক্তির সঞ্চার অধিক মাত্রায় বৃদ্ধি পায় এবং সেই গৃহে কোন কিছুই ভাল হয় না। বাস্তু দোষের কারণে পরিবারে প্রায়ই কলহ দেখা দেয়। পরিবারের সদস্যদের মধ্যে বিবাদ বাঁধতে থাকে। এমনকি স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কেও কোনও ভালোবাসা থাকে না একে ওপরের প্রতি শত্রুভাবাপন্ন হয়ে ওঠে । বাস্তু মতে এই বাস্তুদোষ একটি সুখী জীবনের সমস্ত স্বপ্ন ধ্বংস করে দিতে পারে। যার ফলে জীবনে নেমে আসে অন্ধকার। ক্রমশ বাড়তে থাকে অর্থাভাবের সম্ভাবনা। বাস্তু দোষ ব্যক্তির জীবনকে ছাড়খাড় করে দেয়।

এখন প্রশ্ন হল আপনার বাড়িতে বাস্তদোষ রয়েছে আপনি বুঝবেন কি করে?

আপনি দেখবেন আপনি যখন বাড়ির বাইরে রয়েছেন তখন আপনি হাসছেন, মজা করছেন আপনার মন খুব উৎফুল্ল হয়ে রয়েছে। কিন্তু আপনি যখনই বাড়িতে প্রবেশ করছেন তখনই আপনার মন অবসাদে ডুবে যাচ্ছে কোন প্রকার কারন ছাড়াই। আপনার বাড়ি আসতে ইচ্ছাই করছে না কোন প্রকার কারন ছাড়াই। বাড়িতে পা দেওেয়া মাত্রই মন ভারাক্রান্ত হয়ে পড়ছে।
আবার পরিবারের সদস‍্যদের কোন প্রকার কারন ছাড়াই নানা প্রকার সমস্যার সন্মুখীন হওয়া, হাজার পরিশ্রম করেও সফলতার মুখ না দেখা, পরিবারে হঠাৎ হঠাৎ কেউ অসুস্থ হয়ে পড়া এগুলো যদি নিয়মিত কোন কারন ছাড়াই হতে থাকে তাহলে বুঝতে হবে এগুলো বাস্তু দোষের কারনে হচ্ছে।

এবার বলি এই বাস্তুদোষ নিবারন মন্ত্র, কিভাবে এই মন্ত্র জপ করবেন,এই মন্ত্র পাঠের লাভ :

অত্যন্ত সরল এই মন্ত্রের বিধি। আপনি সকাল বা সন্ধ্যায় নিত্য পুজো করবার পর বাড়ির ঈশান কোনে অর্থাৎ উত্তম পূর্ব কোনে অথবা পূর্ব কোনে অথবা উওর কোনে অথবা এই দিশাগুলোতে যদি সমভব না হয় তাহলে ঠাকুর ঘরে ঠাকুরের স্থানের সামনে আপনি প্রতিদিন এই মন্ত্র ২৭ বার জপ করবেন।

ওঁ নমঃ ভূদেবং ভূদেবং প্রসীদেতু
মম গৃহে ধনধান‍্যেং আরোগ্যং দেহি সর্বদা।

এর অর্থের মধ্যেই এর মাহাত্ম্য লুকিয়ে রয়েছে। এই মন্ত্রে ভূদেবতাকে নিজ গৃহে অবস্থান করে ধনধান্যে অর্থাৎ আর্থিক ভাবে আমাকে সমৃদ্ধ কর এবং আমার গৃহের সকল সদস‍্যদের আরোগ‍্য প্রদান করুন।

বন্ধুরা অত্যন্ত সরল এই মন্ত্রের বিধি কিন্তু এর প্রভাব খুবই চমৎকারী। আপনি কিছুদিন এই মন্ত্র আপনার গৃহে আমাদের বলা নিয়মে জপ করুন দেখবেন বাস্তু সম্পর্কিত সকল সমস্যা ধীরে ধীরে আপনার গৃহ থেকে দূর হয়ে যাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *