April 17, 2024

আপনার রাশি অনুসারে জপ করুন শিবের মন্ত্র এবং পুজো করুন এই পদ্ধতিতে

শিবের পুজো করেন না এমন মানুষ আমাদের এই ভূ ভারতে খুঁজে পাওয়া ভার। আমরা সকলেই নিজের নিজের মনোঃস্কামনা পূরনের উদ্দেশ্যে ভোলেনাথের পূজো করি, তার বিভিন্ন মন্ত্র জপ করি। ভোলেনাথ খুব অল্পতেই তুষ্ট হন। তাকে শুধুমাত্র একটি বেলপাতা এবং এক ঘটি জল ওঁ নমঃ শিবায় মন্ত্র জপ করতে করতে তাকে অর্পণ করলেই তার পুজো সম্পন্ন হয়ে যায়। তবে তাকে বিশেষ ভাবে প্রসন্ন করতে যেমন তাকে বিভিন্ন ফুল অর্পন করার বা বিভিন্ন দ্রব‍্য দ্বারা অভিষেক করানোর কথা আমাদের শাস্ত্রে বলা রয়েছে ঠিক তেমনি জ‍্যোতিষমতে আপনি যদি আপনার রাশিচক্র অনুসারে আমাদের ভগবান শিবের মন্ত্র জপ করতে পারেন তাহলে তিনি অত্যন্ত দ্রুত প্রসন্ন হতে পারেন। আজ আপনারা এই ভিডিওতে জ‍্যোতিষ মতে ১২ রাশির ভগবান শিবের মন্ত্র সম্পর্কে জানবেন। সঙ্গে জানবেন কিভাবে এই মন্ত্র আপনি জপ করবেন এবং কোন দ্রব‍্য অর্পন করবেন যাতে আপনি সবচেয়ে ভাল ফল আপনি পেতে পারেন।

মেষ রাশি : ১২ রাশির মধ্যে প্রথম রাশি হল মেষ রাশি। মেষ রাশির জাতকরা ভগবান শিবেকে দুধ দিয়ে অভিষেক করান সঙ্গে শামি পাতা অর্পন করুন এবং উওর বা উওর – পূর্ব দিকে মুখ করে রুদ্রাক্ষের মালা দিয়ে এই মন্ত্র ১০৮ বার জপ করুন।

মেষ রাশির শিব মন্ত্র হল : হ্রীম ওঁ নমঃ শিবায় হ্রীম্।

বৃষ রাশি : রাশি চক্রের দ্বিতীয় রাশি হল বৃষ রাশি। বৃষ রাশির জাতকরা শিব লিঙ্গকে গঙ্গা জল দ্বারা অভিষেক করান এবং আকন্দ ফুল বা আকন্দের মালা অর্পন করুন সঙ্গে উওর বা উওর – পূর্ব দিকে মুখ করে রুদ্রাক্ষের মালা দিয়ে এই মন্ত্র ১০৮ বার জপ করুন। এটি মহাদেবের পঞ্চাক্ষরী মন্ত্র।

বৃষ রাশির শিব মন্ত্রটি হল : ওঁ নমঃ শিবায়।

মিথুন রাশি : রাশি চক্রের তৃতীয় রাশি মিথুন রাশির জাতকরা শিব লিঙ্গকে মধু এবং দুধ দ্বারা অভিষেক করান সঙ্গে শামি পাতা বা ফুল অথবা আকন্দ ফুল বা পাতা অর্পন করুন এবং সঙ্গে শিবের এই মন্ত্র জপ করুন। জপের সংখ্যা ঐ ১০৮ বার এবং উওর বা উওর – পূর্ব দিকে মুখ করেই রুদ্রাক্ষের মালা দিয়ে জপ করবেন।

মিথুন রাশির শিব মন্ত্রটি হল : ওঁ নমোঃ ভগবতে রুদ্রায়।

কর্কট রাশি :
কর্কট রাশির জাতিরা শিব লিঙ্গকে পঞ্চামৃত দ্বারা অভিষেক করাবেন এবং অবশ্যই বেলপাতা অর্পণ করবেন। সব রাশির জাতকদেরই বেলপাতা অর্পণ করতে হয় কারণ বেলপাতাতে মহাদেব প্রসন্ন হন। এই মন্ত্র আপনারা আগের নিয়মেই জপ করবেন। জপের সংখ্যা ১০৮ বা তার বেশিও করতে পারেন।

কর্কট রাশির জাতকরা যে শিব মন্ত্র জপ করবেন :
ওঁ হৌম জুম স্বাহা।

সিংহ রাশি :
সিংহ রাশির জাতকরা শিবলিঙ্গকে গঙ্গা জল দ্বারা অভিষেক করিয়ে বেলপাতা এবং সাদা ফুল করবেন। এই রাশির জাতকরা শিবকে ভাঙ এবং ধুতুরা ফুল বা ধুতুরা অবশ্যই অর্পন করবেন। সঙ্গে শিবের এই মন্ত্র কমপক্ষে ১০৮ বার জপ করবেন। আপনি চাইলে এর বেশিও জপ করতে পারেন।

সিংহ রাশির শিব মন্ত্রটি হল :
ওঁ ত্রিয়ম্বকম যজামহে,
সুগন্ধিংপুষ্টিবর্দ্ধনম্।
উর্বারুকমিব
বন্ধানান্মৃত্যোর্মুক্ষীয় মামৃতাৎ।।

এটি শিবের মহামৃত‍্যুঞ্জয় মন্ত্র। এটি সর্বরোগ হরণকরী এক মন্ত্র।

কন‍্যা রাশি : কণ‍্যা রাশির জাতকরা শিবকে দুধ এবং ঘি দ্বারা অভিষক করান এবং শামি পাতা অর্পন করুন। এই রাশির জাতকরা উওর বা উওর – পূর্ব দিকে মুখ করে রুদ্রাক্ষের মালা দিয়ে এই মন্ত্র ১০৮ বার জপ করুন।

কন‍্যা রাশির শিব মন্ত্র হল : ওঁ নমোঃ ভগবতে রুদ্রায়।

তুলা রাশি : তুলা রাশির জাতকরা দুধের সঙ্গে শর্করা অর্থাৎ চিনি মিশিয়ে অভিষেক করান এবং আকন্দের ফুল অর্পন করে যথাসম্ভব এই মন্ত্র জপ করুন।

তুলা রাশির শিব মন্ত্র হল : ওঁ নমঃ শিবায়।

বৃশ্চিক রাশি : বৃশ্চিক রাশির জাতকরা দুধ দ্বারা শিবকে অভিষেক করান এবং চাল অর্পন করুন সঙ্গে শিবের এই মন্ত্র উওর বা উওর – পূর্ব দিকে মুখ করে রুদ্রাক্ষের মালা দিয়ে এই মন্ত্র ১০৮ বার জপ করুন।

বৃশ্চিক রাশির শিব মন্ত্র হল : হ্রীং ওঁ নমঃ শিবায় হ্রীং।

ধনুরাশি : ধনুরাশির জাতকরা শিবকে গঙ্গা জলে কেশর মিলিয়ে অভিষেক করান এবং এই মন্ত্র জপ করুন।

ধনুরাশির জাতকদের মন্ত্র হল :
ওঁ তৎপুরুষায় বিদ্মহে
মহাদেবায় ধীমহি,
তন্নো রুদ্রঃ প্রচোদয়াৎ।

মকর রাশি : মকর রাশির জাতকরা গঙ্গা জল এবং গুর দ্বারা অভিষেক করান এবং অপরাজিতা এবং বেলপাতা অর্পন করুন। সঙ্গে এই মন্ত্রটি সেই পূর্বে বলা নিয়মে যতবার সম্ভব জপ করুন।

মকর রাশির জাতকের মন্ত্র হল :
ওঁ নমঃ শিবায়।

কুম্ভ রাশি : কুম্ভ রাশির জাতকরা শিবকে
পঞ্চামৃত দ্বারা অভিষেক করান এবং বেলপাতা,
নীল ফুল বা ধুতুরা ফুল অর্পন করুন সঙ্গে এই মন্ত্র জপ করুন।

কুম্ভ রাশির জাতকের শিব মন্ত্র হল : ওঁ নমঃ শিবায়।

মীন রাশি : মীন রাশির জাতকরা
দুধ এবং কেশর দ্বারা শিব লিঙ্গ অভিষেক করান এবং আকন্দ এবং বেলপাতা অর্পন করুন।

মীন রাশির জাতকের শিব মন্ত্র হল :
ওঁ তৎপুরুষায় বিদ্মহে
মহাদেবায় ধীমহি,
তন্নো রুদ্রঃ প্রচোদয়াৎ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *