February 24, 2024

Ganesh Chalisa

Ganesh Chalisa / Ganesh Chalisa Lyrics – গণেশ চালিশা / শ্রী গণেশ চালিশা


Ganesh chalisa




গণেশ জীকে প্রসন্ন করবার জন‍্য পাঠ করা হয় গণেশ চালিশা। গণেশ বা গণপতি হল হনুমান জীর মত আরেক সংকট মোচন দেবতা। গণেশ চালিশা মূলত লেখা হয়েছিল অবধি ভাষায়। যেকোন ভক্ত সিদ্ধিলাভের জন্য পাঠ করতে পারেন এই গণেশ চালিশা । যেকোন শুভ কাজে সিদ্ধি বা সম্বৃদ্ধি প্রদান করেন গণপতি।

 শ্রী গণেশ চালীসা 


জয় গণপতি সদ্গুণসদন,

কবিবর বদন কৃপাল । 

বিঘ্ন হরণ মংগল করণ,

জয় জয় গিরিজালাল ॥


জয় জয় জয় গণপতি রাজূ ।

মংগল ভরণ করণ শুভ কাজূ ॥


জয় গজবদন সদন সুখদাতা ।

বিশ্ব বিনায়ক বুদ্ধি বিধাতা ॥


বক্র তুণ্ড শুচি শুণ্ড সুহাবন ।

তিলক ত্রিপুণ্ড ভাল মন ভাবন ॥


রাজিত মণি মুক্তন উর মালা ।

স্বর্ণ মুকুট শির নয়ন বিশালা ॥


পুস্তক পাণি কুঠার ত্রিশূলং ।

মোদক ভোগ সুগন্ধিত ফূলং ॥


সুন্দর পীতাম্বর তন সাজিত ।

চরণ পাদুকা মুনি মন রাজিত ॥


ধনি শিবসুবন ষডানন ভ্রাতা ।

গৌরী ললন বিশ্ব-বিধাতা ॥


ঋদ্ধি সিদ্ধি তব চঁবর সুধারে ।

মূষক বাহন সোহত দ্বারে ॥


কহৌং জন্ম শুভ কথা তুম্হারী ।

অতি শুচি পাবন মংগল কারী ॥


এক সময় গিরিরাজ কুমারী ।

পুত্র হেতু তপ কীন্হা ভারী ॥


ভয়ো যজ্ঞ জব পূর্ণ অনূপা ।

তব পহুঁচ্যো তুম ধরি দ্বিজ রূপা ॥


অতিথি জানি কৈ গৌরী সুখারী ।

বহু বিধি সেবা করী তুম্হারী ॥


অতি প্রসন্ন হ্বৈ তুম বর দীন্হা ।

মাতু পুত্র হিত জো তপ কীন্হা ॥


মিলহি পুত্র তুহি বুদ্ধি বিশালা ।

বিনা গর্ভ ধারণ যহি কালা ॥


গণনায়ক গুণ জ্ঞান নিধানা ।

পূজিত প্রথম রূপ ভগবানা ॥


অস কহি অন্তর্ধ্যান রূপ হ্বৈ ।

পলনা পর বালক স্বরূপ হ্বৈ ॥


বনি শিশু রুদন জবহি তুম ঠানা ।

লখি মুখ সুখ নহিং গৌরি সমানা ॥


সকল মগন সুখ মংগল গাবহিং ।

নভ তে সুরন সুমন বর্ষাবহিং ॥


শম্ভু উমা বহুদান লুটাবহিং ।

সুর মুনি জন সুত দেখন আবহিং ॥


লখি অতি আনন্দ মংগল সাজা ।

দেখন ভী আয়ে শনি রাজা ॥


নিজ অবগুণ গুনি শনি মন মাহীং ।

বালক দেখন চাহত নাহীং ॥


গিরজা কছু মন ভেদ বঢ়ায়ো ।

উৎসব মোর ন শনি তুহি ভায়ো ॥


কহন লগে শনি মন সকুচাঈ ।

কা করিহৌ শিশু মোহি দিখাঈ ॥


নহিং বিশ্বাস উমা কর ভয়ঊ ।

শনি সোং বালক দেখন কহ্যঊ ॥


পড়তহিং শনি দৃগ কোণ প্রকাশা ।

বালক শির ইড়ি গয়ো আকাশা ॥


গিরজা গিরীং বিকল হ্বৈ ধরণী ।

সো দুখ দশা গয়ো নহিং বরণী ॥


হাহাকার মচ্যো কৈলাশা ।

শনি কীন্হ্যোং লখি সুত কো নাশা ॥


তুরত গরুড় চঢ়ি বিষ্ণু সিধায়ে ।

কাটি চক্র সো গজ শির লায়ে ॥


বালক কে ধড় ঊপর ধারয়ো ।

প্রাণ মংত্র পঢ় শংকর ডারয়ো ॥


নাম গণেশ শম্ভু তব কীন্হে ।

প্রথম পূজ্য বুদ্ধি নিধি বর দীন্হে ॥


বুদ্ধি পরীক্শা জব শিব কীন্হা ।

পৃথ্বী কী প্রদক্শিণা লীন্হা ॥


চলে ষডানন ভরমি ভুলাঈ ।

রচী বৈঠ তুম বুদ্ধি উপাঈ ॥


চরণ মাতু-পিতু কে ধর লীন্হেং ।

তিনকে সাত প্রদক্শিণ কীন্হেং ॥


ধনি গণেশ কহি শিব হিয় হরষে ।

নভ তে সুরন সুমন বহু বরসে ॥


তুম্হরী মহিমা বুদ্ধি বড়াঈ ।

শেষ সহস মুখ সকৈ ন গাঈ ॥


মৈং মতি হীন মলীন দুখারী ।

করহুঁ কৌন বিধি বিনয় তুম্হারী ॥


ভজত রামসুন্দর প্রভুদাসা ।

লখ প্রয়াগ ককরা দুর্বাসা ॥


অব প্রভু দয়া দীন পর কীজৈ ।

অপনী শক্তি ভক্তি কুছ দীজৈ ॥


  দোহা


       শ্রী গণেশ যহ চালীসা পাঠ করেং ধর ধ্যান । 

       নিত নব মংগল গৃহ বসৈ লহে জগত সন্মান ॥


       সংবৎ অপন সহস্র দশ ঋষি পংচমী দিনেশ । 

       পূরণ চালীসা ভয়ো মংগল মূর্তি গণেশ ॥



গণেশ চালিশা পাঠের উপকারিতা / Benefits of Ganesh Chalisa :


যে ব‍্যক্তি নিত‍্য গণেশ চালিশা পাঠ করেন বা যে গৃহে নিত‍্য গণেশ পূজো হয় নিয়ম মেনে সেই ব‍্যক্তির বা সেই গৃহের কখনও অর্থের অভাব হয় না। গণেশ জীকে বলা হয় সিদ্ধির দেবতা অর্থাৎ আপনার যদি কোন মনোঃকামনা থাকে তাহলে নিত‍্য এই গণেশ চালিশা পাঠে সেই মনোঃকামনা পূর্ণ হয় খুব তাড়াতাড়ি। যেকোন শুভ কাজ শুরু করবার আগে কেউ যদি গণেশ পূজোর সঙ্গে সঙ্গে তার আগে থেকেই নিয়মিত গণেশ চালিশা পাঠ করেন তার কার্য সিদ্ধি হয় খুব তাড়াতাড়ি। গণেশ জীকে সংকট মোচনও বলা হয়ে থাকে। তাই ঘোরতর সংকটে এই চালিশা পাঠে সংকট কেটে যায়।


আপনার নিজের বা আপনার আত্মীয় স্বজনের মনোকামনা পূরন করে এবং যে কোন রকমের সংকট কাটায় এই গণেশ চালিশা । তাই শুভকামনা পূর্ণ করতে এবং সংকট কাটাতে অবশ্যই গণেশ পূজোর সঙ্গে সঙ্গে নিয়মিত পাঠ করুন গণেশ চালিশা


Pdf of Ganesh Chalisa : Download.



                

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *