April 15, 2024

Shiva Linga প্রকৃত অর্থ কি?

      Shiva Lingam Meaning in Bengali


Meaning of shiva linga


হিন্দু ধর্মে মহাদেব শিবকে সর্বোচ্চ দেবতা বলে গন‍্য করা হয়। আর শিব লিঙ্গ হল শিবের প্রতীক। আপনি জানেন কি Shiva Linga র প্রকৃত অর্থ কি? শিব লিঙ্গ ছেলে না মেয়ে? শিব লিঙ্গ কি পুরুষাঙ্গ? আমরা সাধারণ মানুষ শিব লিঙ্গের আসল অর্থ না জেনেই এর অনেক বড় একটা নোংরা অপব‍্যখ‍্যা দিয়ে বসি। আমরা শুধু সাধারণ মানুষ কেন অনেক পড়াশুনা জানা তথাকথিত শিক্ষিত বুদ্ধিজীবী সমাজ এমনকি নানান সেলিব্রিটিরা প্রচারের আলোয় থাকবার জন‍্য বিভিন্ন সময় এই শিব লিঙ্গের অপব‍্যখ‍্যা করে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের মনে কুঠারাঘাত করেছে। আসুন তাহলে আজকে সবিস্তারে জেনেনি Shiva Linga র প্রকৃত অর্থ এবং কেন শিব লিঙ্গের এই রকম আকার? আসুন তাহলে জেনেনি “Shivlinga Story”.

হিন্দু শাস্ত্র মতে কোনদিনই মানুষের গোপনাঙ্গ বোঝাতে শিব লিঙ্গ কথাটি ব‍্যবহার করা হয় নি। “লিঙ্গ” একটি সংস্কৃত শব্দ। এর বাংলায় আক্ষরিক অর্থ হল “প্রতীক” বা “চিহ্ন”। অর্থাৎ শিবের প্রতীক। আমরা শিব ঠাকুরের প্রতীক হিসেবে শিব লিঙ্গকে বলি। যেমন কোন দেশের পতাকা হল সেই দেশের প্রতীক তেমনি শিব লিঙ্গ হল শিবের প্রতীক। ঐটি কোন পুরুষাঙ্গ নয়।

ভারতবর্ষে প্রথমে সুলতানি সম্রাজ‍্য তারপরে মুঘল এবং সবশেষে রাজত্ব করে ব্রিটিশরা। এর ফলে তৎকালীন ভারতীয় সভ‍্যতা,সংস্কৃতি ও ভাষায় এই সমস্ত বংশের প্রভাব দেখতে পাওয়া যায়। আমাদের ভাষা সঙ্গে মিশে গেছে বিদেশী ভাষা। এর ফলেই আমাদের শিব লিঙ্গের এই বিকৃত অর্থ সব জায়গায় শুনতে পাই যা আদতেই মিথ্যা। আমাদের সব ভাষারই উৎস হল সংস্কৃত ভাষা। আর আমাদের সমস্ত হিন্দু শাস্ত্রই সংস্কৃতে লেখা। তাই আমাদের শাস্ত্র প্রনেতাগণ সেই অথেই এই “শিব লিঙ্গ” কথাটি ব‍্যবহার করেছিলেন। পরবর্তীকালে আমরা এর ভিন্ন অর্থ বের করি।


এবার আসা যাক এই শিব লিঙ্গের অন্তর্নিহিত অর্থ। জানেন শিব লিঙ্গের মানে কি? শিব লিঙ্গ হল অসীম। এর না আছে শেষ না আছে শুরু। এর না আছে আদি না আছে অন্ত। পৃথিবীতে যা কিছু বর্তমান তা সব কিছুরই শিব লিঙ্গ সৃষ্টি এবং ধ্বংসও হবে শিব লিঙ্গে। সমস্ত শক্তির হল এই শিব লিঙ্গ। 


আমরা যদি খুব ভালভাবে লক্ষ‍্য করি তবে দেখতে পাব যে বিভিন্ন আকৃতির শিব লিঙ্গ। একে অপরের থেকে অনেকটা আলাদা।কেন শিব লিঙ্গের এই রকম আকার? এর কারন হল বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন উদ্দেশ্যে শিব লিঙ্গ গুলি বানানো হয়েছিল। যেমন ধ‍্যান করবার উদ্দেশ্যে ধ‍্যান লিঙ্গম। কখনও কখনও ভক্তরা নিজের ভক্তি প্রকট করবার জন‍্য শিব লিঙ্গের ভিন্ন রুপ দেয়। কিন্তু সবকটা আকৃতির মধ্যে একটি বৈশিষ্ট্য সদা বর্তমান তা হল এর আকৃতি। শিব লিঙ্গ গুলি সবই ডিমের আকৃতির। আমাদের আদি হিন্দু শাস্ত্র অধ‍্যয়ণ করলে দেখা যায় প্রাচীন ভারতে “অসীম” বা Infinity বোঝাতে এই ডিমের আকৃতিকেই সংকেত হিসেবে ব‍্যবহার করা হতা। অর্থাৎ পুরাণের সময় কালে আমাদের মণি ঋষিদের দ্বারা তৈরি শিব লিঙ্গ সীমাহীন বা অসীম বোঝাতেই গঠিত হয়েছিল।


আমাদের হিন্দু শাস্ত্র প্রনেতাগণ আজকের তথাকথিত বুদ্ধিজীবী বা সেলিব্রিটিদের যারা সস্তার ফুটেজ খাবার জন‍্য না জেনে শিব লিঙ্গ নিয়ে আজেবাজে কথাবলে তাদের থেকে অনেক বেশি সচেতন ছিল। তারা আজ থেকে হাজার হাজার এমন হিন্দু শাস্ত্রে এমন কিছু মৌলিক সৃষ্টি করে গেছেন যা আর অন্য কোন ধর্মে নেই। তবে একথা সত‍্য পরবর্তীকালে কিছু ধর্মের কারবারি তাদের নিজেদের স্বার্থে আমাদের হিন্দু ধর্মের অপব‍্যখ‍্যা করে ধর্মটাকেই কলুষিত করবার চেষ্টা করছেন। এর বড় কারন হল আমাদের নিজেদের শাস্ত্র জ্ঞানহীনতা। তাই তাদের মহান সৃষ্টি গুলো সম্পর্কে না জেনেই বাজে মন্তব্য করাটা অন‍্যায়। 


এবার হয়ত আপনি সহজেই বুঝতে পারছেন শিব লিঙ্গের প্রকৃত অর্থ। এবার থেকে যেই এই শিব লিঙ্গ নিয়ে কটূক্তি করবে তাদের এই লেখাটি পাঠিয়ে দেবেন। আপনার যদি কোন মন্তব্য থাকে বা কোন Suggestion থাকে তাহলে আমাদের Comment বক্সে Comment করে জানান। না হলে অবশ্যই নীচে একবার অন্তত লিখুন “ঔঁ নমঃ শিবায় “।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *